• ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ১৮ই ফাল্গুন ১৪৩০ রাত ১০:৫১:৫৪ (01-Mar-2024)
  • - ৩৩° সে:
এশিয়ান রেডিও
  • ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ১৮ই ফাল্গুন ১৪৩০ রাত ১০:৫১:৫৪ (01-Mar-2024)
  • - ৩৩° সে:

১০ দিনেও খোঁজ মিলেনি অপহৃত মাদরাসা ছাত্রী আয়েশার

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি: অপহরণের ১০ দিনেও খোঁজ মিলেনি কক্সবাজার টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদার পাড়া তালিমুল কোরআন মডেল মহিলা হেফজখানার ছাত্রী আয়েশা সিদ্দিকার। অনেক খোঁজাখুঁজির পরেও কোন সন্ধ্যার না পাওয়াই আয়েশা সিদ্দিকার মা সাজেদা আক্তার মুন্নী বাদি হয়ে টেকনাফ মডেল থানা একটি অপহরণের মামলা দায়ের করেছেন।মামলায় পশ্চিম সিকদার পাড়া মৃত নুর কামালের ছেলে ইব্রাহীম রুহান (৩০), মৃত নুর কামালের স্ত্রী আছমা খাতুন ( ৫০) ও ছেলে মো. শাহীন (২০)-সহ ৩/৪ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে। প্রধান আসামি ইব্রাহীম রুহান তালিমুল কোরআন মডেল মহিলা হেফজ খানার শিক্ষক ও পরিচালক বলে উল্লেখ করা হয়েছে।মামলার এজাহার সূত্র জানা গেছে, ভিক্টিম আয়েশা সিদ্দীকাকে কোরআন শিক্ষায় শিক্ষিত করতে ১ বছর আগে হ্নীলা উম্মে সালমা মহিলা মাদ্রাসা ও তালিমুল কোরআন মডেল মহিলা হেফজখানায় ভর্তি করা হয়েছিল। মাদ্রাসা ২টি পাশাপাশি হওয়ায় প্রতিদিন সকাল ৮টা হতে দুপুর ১ টা পর্যন্ত উম্মে সালমা মহিলা মাদ্রাসা এবং ১টা হতে পরের দিন সকাল ৮ টা পর্যন্ত তালিমুল কোরআন মডেল মহিলা হেফজখানায় পড়াশোনা করে আসছিলেন আয়শা। কিন্তু মাদ্রাসা থেকে ছুটি নিয়ে গত ৯ ফেব্রুয়ারি বাড়িতে আসে সে। ২ দিন বাড়িতে থাকার পর পুনরায় আয়শাকে টমটম করে মাদ্রাসায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য দরগা কবরস্থানের রাস্তায় পৌঁছালে ইব্রাহিম রুহানসহ তার অপরাপর সহযোগিরা টমটম গাড়ি থামিয়ে আয়েশা সিদ্দীকাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহরণের দীর্ঘ দিন হয়ে গেলেও ভিক্টিম উদ্ধার না হওয়ায় দিশেহারা পিতা-মাতা, আত্মীয়-স্বজন, তার সহপাঠীসহ স্বজনরা। তাকে উদ্ধারে সকল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা কামনা করছেন তারা।এ বিষয়ে বিদেশ থেকে ছাত্রীর অভিভাবক আবছার কামাল জানান, যেখানে শিক্ষকরা ছাত্রী বা শিক্ষার্থীদের নিরাপদে রাখতে দেখভাল করবে, সেখানে যদি শিক্ষকরাই অপহরণ করেন; তাহলে আমাদের ছেলে-মেয়েদের কিভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠাব। আমি একজন রেমিটেন্স যোদ্ধা হিসেবে অপহরণকারির সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।ঘটনার বিষয়ে জানতে মাদ্রাটির পরিচালকের কাছে মুঠোফোন বারবার চেষ্ট করলেও সংযোগ না পাওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।টেকনাফ মডেল থানার ওসি মো. ওসমান গণী জানান, ছাত্রী অপহরণের বিষয়ে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে উদ্ধারে পুলিশের অভিযান চলমান রয়েছে। 

জেলার ইতিহাস


দর্শনীয় স্থান