• ঢাকা
  • |
  • রবিবার ৭ই বৈশাখ ১৪৩১ রাত ০১:৩৭:৪৬ (21-Apr-2024)
  • - ৩৩° সে:
এশিয়ান রেডিও
  • ঢাকা
  • |
  • রবিবার ৭ই বৈশাখ ১৪৩১ রাত ০১:৩৭:৪৬ (21-Apr-2024)
  • - ৩৩° সে:

দেবীগঞ্জে ছাত্রকে বলাৎকারের ঘটনায় মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ পৌরসভার আলহেরা মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের ঘটনায় শিক্ষক হাফেজ মিজানুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।২৮ ফেব্রুয়ারি বুধবার রাত পৌনে ৮টায় দেবীগঞ্জ পৌরসভার আলহেরা মাদ্রাসা থেকে ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করে দেবীগঞ্জ থানা পুলিশ।গ্রেফতার হওয়া শিক্ষক মিজানুর রহমান নীলফামারী সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ গোড়গ্রামের মো. লতিফুর রহমানের ছেলে।দেবীগঞ্জ থানা পুলিশ এবং ভুক্তভোগী ছাত্ররা জানায়, আলহেরা মাদ্রাসায় আবাসিক ও অনাবাসিক ব্যবস্থায় পাঠদান চালু আছে। গত ৭/৮ বছর ধরে মিজানুর রহমান এই মাদ্রাসায় প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন। এই সময়ের মধ্যে তিনি ৬/৭ জনকে ছাত্রকে বলাৎকার করেছেন। মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ২৭ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার ছাত্রদের বলাৎকারের অভিযোগ পায় মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি পুলিশকে না জানিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে চাকরিচ্যুত করে। তবে চাকরিচ্যুত হলেও অভিভাবকদের ভয়ে ওই শিক্ষক মাদ্রাসা ত্যাগ করেননি। পরে ২৮ ফেব্রুয়ারি বুধবার বিষয়টি ব্যাপকভাবে জানাজানি হলে অভিভাবক ও স্থানীয়রা ক্ষোভে ফুঁসে উঠেন। এক পর্যায়ে এক হাজারেরও বেশি অভিভাবক ও স্থানীয়রা মিলে অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে রাত আনুমানিক ৮টায় মাদ্রাসায় উপস্থিত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে মাদ্রাসা ভাঙচুরের অভিযোগ জানায়।অভিযোগ পেলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে জানতে পারে বলাৎকারের ঘটনা। অভিযোগ উঠেছে বলাৎকারের ঘটনা ধামাচাপা দিতে কর্তৃপক্ষ মাদ্রাসা ভাঙচুরের পরিকল্পিত অভিযোগ করেছে, যদিও মাদ্রাসায় ভাঙ্গচুরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। বিস্তারিত জানার পর পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।দেবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সরকার ইফতেখারুল মোকাদ্দেম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করেছি। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজুর পর গ্রেফতার ওই শিক্ষককে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে।

জেলার ইতিহাস


দর্শনীয় স্থান