• ঢাকা
  • |
  • সোমবার ২১শে ফাল্গুন ১৪৩০ রাত ১১:৫৭:৫৬ (04-Mar-2024)
  • - ৩৩° সে:
এশিয়ান রেডিও
  • ঢাকা
  • |
  • সোমবার ২১শে ফাল্গুন ১৪৩০ রাত ১১:৫৭:৫৬ (04-Mar-2024)
  • - ৩৩° সে:

দ্রুততম সময়ে নামজারিতে নারায়ণগঞ্জে প্রথম আড়াইহাজার উপজেলা

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় নামজারিতে কমেছে দীর্ঘসূত্রিতা। দ্রুততম সময়ে নামজারিতে জেলায় প্রথম হয়েছে আড়াইহাজার উপজেলা ভূমি অফিস।জানা গেছে, আড়াইহাজার উপজেলায় মাত্র ১৬ দিনে জমির নামজারি করা হচ্ছে। এতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন সেবা গ্রহীতারা। ভূমি সেবার ক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন এসেছে এই উপজেলায়। ১০টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত আড়াইহাজার উপজেলার সাধারণ মানুষের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে।ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইডে দেখা গেছে, ফেব্রুয়ারি মাসে গড়ে ১৬ দিনে নামজারি দিচ্ছে আড়াইহাজার উপজেলা ভূমি অফিস। অতীতে একটি নামজারি নিষ্পত্তি হতে গড়ে অনেক বেশী সময় লেগে যেত। ওয়েব সাইডে দেখা গেছে সোনারগাঁয়ে সময় লাগে ১৮ দিন, ফতুল্লায় সময় লাগে ১৯ দিন, সদরে সময় লাগে ২০ দিন, সিদ্ধিরগঞ্জে সময় লাগে ২০ দিন, বন্দরে ২৪ দিন ও রুপগঞ্জে ৩১ দিন। সেই হিসেবে জেলায় প্রথম স্থানে অবস্থান করছে আড়াইহাজার ভূমি অফিস।আড়াইহাজারে ভূমি সেবার ক্ষেত্রে এসেছে আমূল পরিবর্তন। ই-নামজারি, মিস মোকদ্দমা, ভূমি উন্নয়ন কর প্রদানসহ ভূমি বিষয়ক সেবাগুলো দ্রুত এবং হয়রানিমুক্ত পরিবেশে প্রদান করা হচ্ছে। ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভূমিসেবা ডিজিটালাইজেশন মনিটরিং সেলের ভূমি বিষয়ক সেন্ট্রাল ডাটাবেইজের তথ্য অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ জেলার মধ্যে আড়াইহাজার উপজেলা সবচেয়ে কম সময়ে নামজারি দিচ্ছে।এছাড়া দ্রুত সময়ে মিস মোকদ্দমা নিষ্পত্তি, ভূমি উন্নয়ন কর আদায়, খাস জমি ব্যবস্থাপনা, আশ্রয়ন প্রকল্প সংক্রান্ত কার্যক্রম স্বচ্ছতার সাথে সম্পাদন করা হচ্ছে।এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) শামসুজ্জাহান কনক বলেন, ভূমিসেবাকে সহজীকরণ এবং জনবান্ধব করার লক্ষ্যে জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশনায় উপজেলা ভূমি অফিস, আড়াইহাজার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশে সেবার মান উন্নয়নে ভূমিসেবাকে ডিজিটাইজেশনের বিকল্প নাই। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ডিজিটাল ভূমিসেবা থেকে স্মার্ট ভূমিসেবা রূপান্তরে আমরা বদ্ধপরিকর।তিনি আরও  বলেন, ‘ভূমিসেবা ডিজিটাল, বদলে যাচ্ছে দিনকাল’ শ্লোগানকে ধারণ করে ভূমি মন্ত্রণালয় ভূমিসেবাকে ডিজিটাইজ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছিল। সেটিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিতে ডিজিটাল ভূমিসেবা থেকে স্মার্ট ভূমি সেবায় রূপান্তরের প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে শুরু করা হয়েছে।

জেলার ইতিহাস


দর্শনীয় স্থান