• ঢাকা
  • |
  • সোমবার ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ভোর ০৪:০১:২৯ (27-May-2024)
  • - ৩৩° সে:
এশিয়ান রেডিও
  • ঢাকা
  • |
  • সোমবার ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ভোর ০৪:০১:২৯ (27-May-2024)
  • - ৩৩° সে:

ফিচার

মধুপুর গড়ে দেশের বৃহত্তম কলার হাট

৮ মে ২০২৩ বিকাল ০৩:৪৩:৩৭

মধুপুর গড়ে দেশের বৃহত্তম কলার হাট

হাবিবুর রহমান, মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের মধুপুর গড় আনারসের রাজধানী হলেও এখন একে কলার রাজধানী বললে মোটেও ভুল বলা হবে না। মধুপুরের লাল মাটিতে আনারসের পাশাপাশি ব্যাপক পরিমান কলার চাষ হয়ে থাকে। উর্বর এ লাল মাটি কৃষি ফসল উৎপাদনের জন্য বিশেষ উপযোগী। প্রাকৃতিকভাবে উঁচু ও বন্যামুক্ত হওয়ায় মধুপুরে প্রচুর পরিমান আনারস, পেঁপে, আদা, কচুসহ কলা চাষ হয়ে থাকে। তাই স্থানীয়রা এখন মজা করে মধুপুর গড়কে বলছে কলার রাজধানী । মধুপুরে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও কলার বাম্পার ফলন হয়েছে। জলছত্র ট্রাক ড্রাইভার্স ইউয়িনের পক্ষ থেকে পাইকারদের সুবিধার জন্য করা হয়েছে থাকা-খাওয়ার সু-ব্যবস্থা। আনারসের মতো এখানকার কলারও সুনাম এখন ছড়িয়ে পড়েছে সারা দেশে ।

জানা যায়, টাঙ্গাইলের মধুপুর থেকে প্রতিদিন প্রায় কোটি টাকার কলা বিক্রি হয়ে থাকে। এ বছর উপজেলায় ২৩৫৫ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির কলার আবাদ করা হয়েছে। কলাকে কেন্দ্র করে মধুপুরের জলছত্র নামক স্থানে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে গড়ে উঠেছে দেশের অন্যতম বৃহৎ কলার বাজার। এ বাজার মূলত শুক্র ও মঙ্গলবার বসার কথা থাকলেও উৎপাদন ও চাহিদা বেশি  হওয়ার কারণে এখন সপ্তাহে ৬ দিন কলা বেচা কেনা হয়। ভালো যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে সহজেই দেশের বিভিন্ন স্থানে কলা সরবরাহ করা যায়।  

এখানকার কলার গুণগতমান ভালো হওয়ার কারণে বিভিন্ন জেলার পাইকাররা আসছেন কলা কিনতে । কলা পরিবহনে জলছত্র বাজারেই গড়ে উঠেছে ট্রাক ও কর্ভাড ভ্যান ড্রাইভার্স  ইউয়িন। পরিবহন ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় অন্য জেলায় কলা নিয়ে যেতে পাইকারদের গাড়ীর সমস্যায় পড়তে হয় না।

তবে সার, কীটনাশক ও জ্বালানী তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় কলা চাষে খরচ আগের তুলনায় বেড়েছে। কলা বিক্রি করতে আসা চাষী ও পাইকাররা জানান, বাজারে আকারভেদে প্রতি ছড়া কলা বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ৬০০ টাকা দরে। বাজারের পাশাপাশি অনেকে আবার বাগান থেকেও সরাসরি কলা কিনে নিচ্ছেন।  এখানকার কলা এখন ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, কিশোরগঞ্জ, পাবনাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে।

মধুপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আল মামুন রাসেল জানান, এ বছর মধুপুরে ২৩৫৫ হেক্টর জমিতে সাগর, সর্বি, বিচি, চাম্পা কলাসহ বিভিন্ন প্রজাতির কলার চাষ হয়েছে। যদিও সার-কীটনাশক ব্যবহারে উৎপাদন খরচ বেড়েছে অনেক। তাই খরচ কমানো ও নিরাপদ ব্যাগিং পদ্ধতিতে কলা চাষের জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

Recent comments

Latest Comments section by users

No comment available

সর্বশেষ সংবাদ







‘সংবিধানে বলা আছে আমরা জনগণের সেবক’
২৬ মে ২০২৪ সন্ধ্যা ০৭:৪৭:১৬