• ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ৫ই বৈশাখ ১৪৩১ রাত ০৩:৩৭:১৬ (19-Apr-2024)
  • - ৩৩° সে:
এশিয়ান রেডিও
  • ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ৫ই বৈশাখ ১৪৩১ রাত ০৩:৩৭:১৬ (19-Apr-2024)
  • - ৩৩° সে:

উদীচীর বিরুদ্ধে বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে ডিএমপির নির্দেশনা অমান্যের অভিযোগ

বিশেষ প্রতিবেদক: বর্ষবরণের অনুষ্ঠান করতে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) নির্দেশনা উপেক্ষার অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে। পুলিশের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানটি সরকার নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করার অনুরোধ করা হয়। কিন্তু সরকারের বেঁধে দেওয়া সময় মানেনি তারা। নির্দেশনা উপেক্ষা করেই তারা ১৪ এপ্রিল রোববার শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে বর্ষবরণের অনুষ্ঠান করে।এদিকে সরকার নির্ধারিত সময়ের পর অনুষ্ঠানের অনুমতি চেয়েছিলো উদীচী। কিন্তু তাদেরকে ডিএমপির পক্ষ থেকে সে অনুমতি দেওয়া হয়নি। সময় সংকোচনের নির্দেশনার মধ্যেই ‘বর্ষবরণ মানে না শৃঙ্খলা’ শিরোনামে সন্ধ্যায় শাহবাগে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে উদীচী। সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হওয়া সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সন্ধ্যা ৭টার দিকে শেষ করা হয়।জানা গেছে, এপ্রিল পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষে রাজধানীর রমনা বটমূলে মূল অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ছায়ানট। শিশু একাডেমিতে অনুষ্ঠান করে রিজিস শিল্পীগোষ্ঠী, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সামনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট এবং জাতীয় জাদুঘরের সামনে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে উদীচী।অন্য সংগঠনগুলোর মতো উদীচীও অনুষ্ঠানের আগেই ডিএমপি কমিশনার বরাবর লিখিত আবেদন করে অনুমতি নেয়। কিন্তু তারা নির্ধারিত সময়ের পরে অনুষ্ঠান করার আবেদন করে। পরে ডিএমপির পক্ষ থেকে একটা চিঠিতে তাদেরকে এ আবেদন নাকচ করে দেওয়া হয়।নববর্ষের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, হাতিরঝিল, রবীন্দ্র সরোবরসহ বর্ষবরণের অনুষ্ঠান সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে শেষ করতে হবে। অপরদিকে গত শনিবার সংবাদ সম্মেলন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, বর্ষবরণের সব আয়োজন বিকেল ৫টার মধ্যে শেষ করা হবে।এদিকে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী ঢাকায় সকালে একক কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করেনি। সাংগঠনটি বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। তবে সারাদেশে ৫০টি জেলায় তাদের একক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পরে ‘বর্ষবরণ মানে না শৃঙ্খলা’ শিরোনামে সন্ধ্যায় সারাদেশে আবার উদীচী শিল্পীরা প্রতিবাদী অনুষ্ঠান আয়োজন করে।এ বিষয়ে জানতে চাইলে উদীচীর কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক অমিত রঞ্জন দে বলেন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করতে ডিএমপি কমিশনের কাছ থেকে অনুমতি নেওয়া বিষয় না। বিষয়টি হচ্ছে, একটি স্থানে অনুষ্ঠান করবে উদীচী এটা জানানোর জন্য চিঠি দেওয়া। ডিএমপির পক্ষ থেকে পাল্টা চিঠি দিলে সেটা আমলে না নিয়ে অনুষ্ঠান করা হয়েছে। আমাদের মানসিক প্রস্তুতি ছিল, পুলিশ অনুষ্ঠানে বাধা দিলেও আমরা আমাদের শক্তি দিয়ে অনুষ্ঠান চালিয়ে যাবো। তবে পুলিশ এতে বাধা দেয়নি, তারা শেষ করার জন্য বারবার বলেছে।