• ঢাকা
  • |
  • মঙ্গলবার ৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ সকাল ০৬:৪৭:০৪ (21-May-2024)
  • - ৩৩° সে:
এশিয়ান রেডিও
  • ঢাকা
  • |
  • মঙ্গলবার ৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ সকাল ০৬:৪৭:০৪ (21-May-2024)
  • - ৩৩° সে:

ক্রিকেট

প্রথম দিন শেষ স্বস্তিতে টাইগার শিবির

১৪ জুন ২০২৩ রাত ০৮:২৮:৪২

প্রথম দিন শেষ স্বস্তিতে টাইগার শিবির

স্পোর্টস ডেস্ক: আফগানিস্তানের বিপক্ষে দিনের শুরুতে জাকির হাসানের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর মাহমুদুল হাসান জয় ও নাজমুল হোসেন শান্তর করা ২১২ রানের জুটিতে ভর করে ঘুরে দাঁড়ায় টাইগাররা। শান্তর শতক এবং জয়ের অর্ধশতকের  পর তৃতীয় সেশনে দ্রুতই উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। শুরুতে ব্যাকফুটে মনে হলেও মুশফিকুর রহিম এবং মেহেদি হাসান মিরাজের দৃঢ় ব্যাটিংয়ে স্বস্তি ফেরে টাইগার শিবিরে।

প্রথম দিনের খেলা শেষে ৭৯ ওভার ব্যাট করে শান্ত করেছেন ১৪৬ ও জয় ৭৬ রান। এই  ৩৬২ রানের স্কোরে ভর করেই ৫ উইকেটে প্রথম দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ। দিনশেষে ক্রিজে ৪১ রানে অপরাজিত ছিলেন মুশফিকুর রহিম। ৪৩ রানে মেহেদি হাসান মিরাজ শেষ পর্যন্ত সঙ্গ গিয়েছেন তাকে।

১৪ জুন বুধবার মিরপুরে একমাত্র টেস্টে টসে হেরে ব্যাটিং করতে নামে বাংলাদেশ। শুরুতেই জাকির হাসানের উইকেটে হোঁচট খায় স্বাগতিকরা। দলীয় ৬ এবং ব্যক্তিগত ১ রানে তিনি সাজঘরে ফেরেন। আফগান পেসার নিজাত মাসুদের অফ স্টাম্পের বাইরের একটি বলে খোচা দিয়ে কট বিহাইন্ড হন জাকির।

নাম্বার তিনে ক্রিজে আসেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ওয়ানডে মেজাজে ব্যাটিং শুরু করে লাঞ্চ বিরতির আগে তুলে নেন টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি। আমির হামজার বলে আউট হওয়ার আগে স্কোর বোর্ডে যোগ করেন ১৪৬ রান।

শান্ত টেস্টের মেজাজ ভুলে ব্যাটিং করতে থাকলেও ঠিক বিপরীত মেজাজে ব্যাট করে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে দলকে টেনে নিয়ে যান জয়। এই দুজনের অবিচ্ছেদ্য জুটিতে ১ উইকেটে ১১৬ রান নিয়ে দ্বিতীয় সেশনের খেলা শুরু করেন তারা।

পরে ১০২ বলে ক্যরিয়ারের তৃতীয় অর্ধশতক তুলে নেন তরুণ বাহাতি ব্যটার জয়। ১১৮ বল খেলে আউট হন অনিয়মিত লেগ স্পিনার রহমত শাহের বলে।

পরে ক্রিজে আসেন মাহমুদুল হাসান। কিন্তু তিনি সুবিধা করতে পারেননি। রহমতের বলে স্লিপে ইব্রাহিম জাদরানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সাঁজ ঘরে। ভেঙে যায় শান্তর সাথে তার ২১২ রানের জুটি।

পরে মুমিনুল ক্রিজে এলে ২ উইকেটে ২৩৫ রান তুলে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ। ফিরে এসে পেসার নিজাত মাসুদের লেগ স্টাম্পের বাইরের বলে খোচা দিয়ে আউট হন মুমিনুল। এর আগের তোলেন ২৫ বলে ১৫ রান।

এরপর ক্রিজে আসেন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক লিটন দাস।  ছক্কা হাঁকিয়ে দারুণ শুরুর আভাস দিলেও বাঁহাতি স্পিনার জহির খানের একটি স্লো ডেলিভারিতে স্লিপে থাকা ইব্রাহিম জাদরানের হাতে ক্যাচ তুলে দেন। তার ব্যাট থেকে যোগ হয় ১৫ বলে ৯ রান ।

দলীয় ২৯০ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় স্বাগতিকরা। তবে মিস্টার ডিপেন্ডেবল মুশফিকুর রহিম এবং মেহেদি হাসান মিরাজ দৃঢ়ভাবে দলের হাল ধরেণ। তাদের অপরাজিত ৭২ রানের জুটিতে দিন শেষে স্বস্তিতে টাইগার শিবির।

আফগানিস্তানের পক্ষে অভিষেক ম্যাচেই ২ উইকেট পেয়েছেণ তরুন পেসার নিজাত মাসুদ। এছাড়া দলের পক্ষে ১ টি করে উইকেট পেয়েছেন রহমত শাহ, জহির খান ও আমির হামজা।

Recent comments

Latest Comments section by users

No comment available

সর্বশেষ সংবাদ